Go To Page: 1 | 2 | 3 | 4 | 5

তৈরি করুন নিজের ব্লাড ব্যাংক

By sHuvo WhtЄvR

* নিজেই তৈরি করুন নিজের ব্লাড ব্যাংক...
একটু লক্ষ্য করুন, আপনার পরিচিত কমপক্ষে ৫০০/৬০০ মানুষ আছে, যাদের সাথে আপনার নিয়মিত দেখা হয়। আপনার এলাকার মানুষজন, আপনার নিকটাত্মীয়, আপনার অফিস কলিগ, আপনার বন্ধুবান্ধব এবং আরও অনেকে। একবার ভেবে দেখুন, এদের সবার রক্তের গ্রপ যদি আপনার জানা থাকে, তাহলে আপনি হতে পারেন একজন “মোবাইল ব্লাড ব্যাংক”

* কীভাবে তৈরি করবেন আপনার নিজস্ব ব্লাড ব্যাংক???...
এটা আসলে কোন কাজ নয়, এটা একটা অভ্যাস। তাই আপনাকে অভ্যস্ত হতে হবে, বন্ধু-বান্ধব যার সাথেই কথা হবে তার রক্তের গ্রুপ জেনে নিন এবং সংগ্রহে রাখুন। লিখে রাখাটা অনেকের কাছেই বাড়তি ঝামেলা মনে হতে পারে। তাই একটা টেকনিক মেনে চলতে পারেন। সেটা হচ্ছে আপনার মোবাইলে Contact Number এ নামের সাথে রক্তের গ্রুপটা লিখে রাখা। যেমন: sHuvo O+, Selim O+, Rubayet AB+, Shoyeb A+  ইত্যাদি

(সম্ভব হলে রক্তের গ্রুপের পাশে জেলা এবং শেষ রক্তদানের তারিখও লিখে রাখতে পারেন... যেমন আমার মোবাইলে লেখা আছে Jubayer B+ Dhaka 30Aug2014)

আপনার “মোবাইল ব্লাড ব্যাংক” নিজের প্রয়োজনে যেমন লাগবে, তেমনি জরুরী মুহূর্তে বন্ধু-বান্ধবের সাহায্যেও আপনি এগিয়ে আসতে পারবেন।

তাছাড়া, মোবাইল ফোন আরও বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা যেতে পারে। যেমনঃ রক্তদান করেই আজ থেকে ঠিক ৩ মাস পরের তারিখটিতে মোবাইলে রিমাইন্ডার দিয়ে লিখে রাখুন "রক্ত দিন জীবন বাঁচান"... এতে বুঝতে পারবেন আপনার আবার রক্তদানের সময় হয়েছে। সপ্তাহের অন্য দিনগুলোতে সময় এবং সুযোগের অভাবে রক্তদান করা সম্ভব হয় না। তাই সাপ্তাহিক বন্ধ বা সরকারী ছুটির দিনগুলোতে রিমাইন্ডার দিয়ে রাখুন, এতে বন্ধের দিনটি রক্তদানের মত একটি ভাল কাজে কাটানোর কথা মনে পড়বে। :)

Facebook Link 1 | Facebook Link 2 | Facebook Link 3

রক্তদাতাদের জন্য আমি আমার একটি মানবিক দাবি উত্থাপন করতে চাই...

By sHuvo WhtЄvR (14 June, 2013)


আজ বিশ্ব রক্তদাতা দিবস। আজকের এই দিনটি আমরা সকল রক্তদাতাদের উৎসর্গ করলাম। আপনারা সবসময় ভাল থাকুন, এবং মানুষ বাঁচানোর সংগ্রামে আপনারা হোন অপরাজেয় যোদ্ধা। সালাম সকল রক্তদাতাদের।

 

… রক্তদাতাদের জন্য আমি আমার একটি মানবিক দাবি উত্থাপন করতে চাই …
————————————————————————–
“মানুষ মানুষের জন্যে, জীবন জীবনের জন্যে”

হ্যাঁ, সত্যিই তাই। মানুষই এগিয়ে আসছে মানুষকে বাঁচিয়ে তোলার জন্য। আপনার দানকৃত রক্তই ফিরিয়ে দিচ্ছে অন্যের জীবন। এবং এই রক্তদাতারা এই মহৎ কাজটি করে যাচ্ছেন নিঃস্বার্থভাবে, নিভৃতে। কিন্তু শরীর থেকে ১ পাইন্ট (প্রায় হাফ লিটার) রক্ত দান করার পরপরই রক্তদাতারা জীবিকার তাগিদে ছুটে যাচ্ছেন অফিসে কিংবা কর্মক্ষেত্রে, কারো কারো হয়তো করতে হচ্ছে হাড় ভাঙা পরিশ্রম। রক্তদানের পর কমপক্ষে ২৪ ঘন্টা কোনও প্রকার কঠিন শারীরিক পরিশ্রম থেকে দূরে থাকা বাঞ্ছনীয়। পর্যাপ্ত পরিমান পানি পান করা আর শরীরের যত্ন নেয়া অনেক জরুরি।

শুধু তাই নয়, রক্তদানের মতো একটি মহৎ কাজ শেষে যদি অফিসে গিয়ে কাজ করতে হয় এবং এর মাঝে কোনও ত্রুটির জন্য “বসের ঝাড়ি” খেতে হয়, এই ব্যাপারটা কোনও ভাবেই মেনে নেয়া যায় না, একজন উদার এবং মহৎ মনের রক্তদাতা এমন কোনও ব্যবহারের যোগ্য নন অন্ততপক্ষে ঐদিনটির জন্য।

এই নিঃস্বার্থ, উদার এবং মহৎ মনের রক্তদাতাদের শারীরিক অবস্থার কথা চিন্তা করে আমি আমার একটি মানবিক দাবি উত্থাপন করতে চাই।

“যেদিন যে রক্তদাতা রক্তদান করবেন, সেইদিনটি সেই রক্তদাতার জন্য সরকারীভাবে ছুটি ঘোষণা করতে হবে। পর্যাপ্ত যত্ন এবং বিশ্রামের জন্য এই ছুটি খুবই দরকার। তাছাড়া এই ছুটি হতে পারে জাতির পক্ষ থেকে রক্তদাতাকে সম্মান প্রদর্শনের প্রতীকস্বরূপ। একজন রক্তদাতা বছরে সর্বোচ্চ ৩ বার রক্তদান করতে পারেন ৪ মাস অন্তর অন্তর। তাই আমার মনে হয়, বছরে এই ৩ দিন ছুটি দানে যথাযথ কর্তৃপক্ষের বিশেষ কোনও ক্ষতি হবে না।
বিঃ দ্রঃ রক্তদাতার এই ছুটি অবশ্যই ‘বৈতনিক ছুটি ( Paid Leave )’ হতে হবে। ”

রক্তদাতাদের করনীয়ঃ রোগীকে রক্তদানের পর হাসপাতাল বা রক্তদান কেন্দ্রের সিল, ডাক্তারের স্বাক্ষর এবং রোগীর বিবরণসহ একটি প্রমাণপত্র অবশ্যই সংগ্রহ করতে হবে এই ছুটি সুযুক্তিপূর্ণ করার জন্য।

আমি জানি আমার এই দাবী হয়ত যথাযথ কর্তৃপক্ষের কান পর্যন্ত পৌঁছাবে না, কিন্তু তারপরও জানি ইচ্ছা করলেই কিছু কিছু বেসরকারি প্রতিষ্ঠান রক্তদাতাদের সম্মান প্রদর্শনপূর্বক এবং রক্তদাতাদের শারীরিক সুস্থতার জন্য খুব সহজেই এই ছুটি প্রদান করতে পারবেন নিজস্ব প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের জন্য। অন্তত চেষ্টা তো করতে পারি আমরা।{jcomments on}

 Facebook Link | Facebook Link 2

ATTENTION “এবি নেগেটিভ” রক্ত গ্রুপের বন্ধুরা।

{jcomments on}By sHuvo WhtЄvR

আমি অনেক কান্না দেখেছি, অনেক কান্না শুনেছি।
বিশ্বাস করুন একটিবারঃ “এবি নেগেটিভ” রক্ত এতটাই দুষ্প্রাপ্য, দুর্লভ হয়তো আপনি নিজেও জানেন না। এই “এবি নেগেটিভ” রক্তের অভাবে অনেক মুমূর্ষু রোগীর এবং তাঁর প্রিয়জনের কান্না শুনেছি। নিজেকে অনেক বেশি অসহায় মনে হয় তখন। নিভৃতে চোখের জল ফেলেছি।


পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, সারা বাংলাদেশের মানুষের মধ্যে যারা রক্তদানে সমর্থ তাদের মাত্র ০.১% এর মতো মানুষের আছে “এবি নেগেটিভ” রক্ত। বুঝতেই পারছেন, এই গ্রুপের রক্ত সহজলভ্য নয়।
“এবি নেগেটিভ” গ্রুপের বন্ধুদের আমার বিনীত অনুরোধ, আপনারা এই লিঙ্ক থেকে "এবি নেগেটিভ" রক্তদাতা হিসাবে রেজিস্ট্রেশন করুন। কিংবা আপনারা আমাকে আমার ফেইসবুক প্রোফাইলেও (sHuvo WhtЄvR) ম্যাসেজ করতে পারেন।  আপনার বন্ধুরা যদি ”এবি নেগেটিভ” গ্রুপের হয়ে থাকেন তাহলে উনাদের ফেইসবুক লিঙ্ক আমাকে জানিয়ে দিন। আমি উনাদের সাথে যোগাযোগ করে নিব।
আপনাদের তথ্য আমি সংগ্রহ করে রেখে দিবো- যেন আপনাদের প্রয়োজনেই “এবি নেগেটিভ” রক্তদাতারা এগিয়ে আসতে পারেন।

আপনাদের প্রয়োজনের সময় আমি আপ্রাণ চেষ্টা করব “এবি নেগেটিভ” রক্ত ম্যানেজ করে দিতে – হ্যাঁ, আমি দায়িত্ব নিয়ে বলছি। বিশ্বাস করুন একটি বার।

 Facebook Link

আমার মনে একটা চাপা দুঃখ আছে

By sHuvo WhtЄvR

আমার মনে একটা চাপা দুঃখ আছে।

২০০৫-২০০৬ সালের দিকে NSU তে রক্তদান কর্মসূচিতে আসে কোনো একটি  ব্লাড ব্যাংক। আমিও অনেক আগ্রহ নিয়ে রক্ত দিতে সেন্টারে গেলাম। কিন্তু সেন্টারের দরজা থেকেই আমাকে ফিরে আসতে হলো। আমার এই রোগা পাতলা গড়নের শরীর থেকে রক্ত নিলে নাকি উল্টো আমার শরীরে রক্ত দেয়ার জন্য মানুষ খুঁজতে হবে। যাইহোক, সেই সময় আমার এই অপরিপক্ক মনে  হঠাৎ করে কেমন যেন একটা হতাশা কাজ করছিল। রক্তদান করে মানুষকে সাহায্য করতে পারব না - এইটা মেনে নিতে পারছিলাম না তখন।  এখনো আমি সেই রোগা পাতলা গড়নেরই আছি। রক্তদান করা হলো না এখনো। দুঃখটা এখনো রয়ে গেল মনের গভীরেই।  চিন্তা করলাম অন্যভাবে কিছু করা যায় কিনা যা প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জরুরিভিত্তিতে যাদের রক্তের প্রয়োজন এমন মানুষকে সাহায্য করতে পারে।

এক বছর আগের কথা। তখনি ঠিক করলাম রক্তদাতাদের তথ্য সংরক্ষণ করে রাখার জন্য ওয়েবভিত্তিক একটা ডাটাবেস ডেভেলপ করব যেন রক্তের দরকার পড়লে রক্তের গ্রুপ দ্বারা খুঁজে সহজেই রক্তদাতাদের সাথে যোগাযোগ করা যায় । বিভিন্ন সীমাবদ্ধতার জন্য এতদিন ইচ্ছাটা পূরণ করা সম্ভব হয়নি। কিন্তু গত ২/৩ সপ্তাহের অক্লান্ত পরিশ্রমে অবশেষে শেষ করলাম অনলাইনভিত্তিক রক্তদাতাদের ডাটাবেস ডেভেলপ করার সিস্টেম www.DonateBloodBD.com  .

এই ওয়েবসাইটটিতে রক্তদাতাদের রক্তের গ্রুপ, যোগাযোগের তথ্য এবং আনুষঙ্গিক আরও তথ্য সংরক্ষণ করে রাখা যাবে। রক্তের গ্রুপ, শহর কিংবা এলাকা ভিত্তিক সার্চ করে রক্তদাতাদের খুঁজেও বের করা যাবে। পারস্পরিক যোগাযোগের জন্য মন্তব্য করার ব্যবস্থা রয়েছে প্রতিটি পোস্টে। দয়া করে আপনারা Donor লিস্টে নিজেদের অন্তর্ভুক্ত করুন এই লিংক থেকে: http://www.donatebloodbd.com/be-a-donor.html . ওয়েবসাইটটি শেয়ার করুন সবার সাথে কারণ যতবেশী শেয়ার হবে, মানুষ রক্তদানের জন্য সচেতন হবে ততবেশী, সাথে বাড়বে রক্তদাতাদের সংখ্যা, এবং এইভাবে হয়ত আমরা বাঁচাতে পারব হাজারো মুমূর্ষু রোগীদের জীবন যাদের জরুরিভিত্তিতে রক্তের প্রয়োজন হবে।

ওয়েবসাইটটির মাধ্যমে যদি ১০ জন মানুষও  উপকৃত হয় তাহলে নিজেকে সার্থক মনে করব :)

আপনাদের কোনো পরামর্শ থাকলে আমাকে অবশ্যই জানাবেন। রক্তদাতাদের তথ্য সংরক্ষণের মাধ্যমে বড় একটি ডাটাবেস তৈরী করার জন্য আপনাদের সবার সাহায্য চাচ্ছি। এই কাজে আপনারা আমার পাশে থাকবেন তো?

...Donate Blood: Save People and Be Saved...

{jcomments on}Facebook Link

রক্ত দিন, জীবন বাঁচান (থিম সং)

Join Us on Facebook

We have 95 guests and no members online

রক্তদাতা হিসাবে রেজিস্ট্রেশন করুন